Deprecated: Array and string offset access syntax with curly braces is deprecated in /home/pkcx9hxt8y2i/anupamroymusic.com/libraries/f0f/less/less.php on line 1067

Deprecated: Array and string offset access syntax with curly braces is deprecated in /home/pkcx9hxt8y2i/anupamroymusic.com/libraries/f0f/less/less.php on line 2822
Bakyobagish Lyrics | Anupam Roy Album

Bakyobagish, 2014

চাকা

১)
ঘুরছি আমি ঘুরছে চাকা
উড়ছে খুলি উড়ছে টাকা
পুড়ছে চোখের চামড়া পালক
পারছি না আর নেভাও আলো।
শহরতলির মনের ভেতর
তোমার পায়রা মাখছে আতর
খুশবু লোটায় কানের কাছে
আমার কলজে খেজুর গাছে।

chorus
আমার কথা আর বলো না, বলো না
কবি হওয়া আর হল না, হল না
চাইছ কেন রাতের হিসেব
টেবিল জুড়ে কলম পিষে
কাব্যি করা উঠল ডকে
আমার মাথায় কুকুর ডাকে।

২)
মা মাটি হাতুড়ি কাস্তে
গিলছে মানুষ আস্তে আস্তে
আমরা নাচছি পথে পথে
বন্ধ ডাকছি উলটো রথে।
মানিক বাবুর শুটিং ক্যান্সেল
সবার বুদ্ধি হচ্ছে পার্সেল
আজকে যদি থাকত হুতম
পিটিয়ে তোদের করত খতম।

chorus
আমার কথা আর বলো না, বলো না
কবি হওয়া আর হল না, হল না
চাইছ কেন রাতের হিসেব
টেবিল জুড়ে কলম পিষে
কাব্যি করা উঠল ডকে
আমার মাথায় কুকুর ডাকে।

যে সমাজে

যে সমাজে আমার কোন জায়গা নেই
সেই সমাজে আবার গাইছি গান
আমি মাতাল হতে পারি
আমি পাগোল হতে পারি
আমি ব্যর্থ হতে পারি
নিঃস্বার্থ হতে পারি, হতে দাও।

১)
আমার শেকল কাদের হাতে?
নজরবন্দী থাকতে জানি না
আমার ডানায় হাওয়া ছুঁলে
ভাবলে কেন উড়তে জানি না।
সমাজ থাকুক নিজের মতো
আমার মুখের লাগাম খুঁজছি না।

২)
Suitcase-এ সব দম ফুরিয়ে
naphthalene-এর গন্ধ চিনেছি
status quo-য় থমকে থেকে
বিশাল বিশাল শূন্য এঁকেছি।
এখন আমি অসমাজের
সংজ্ঞা জানি, থাকতেও শিখেছি।

বাবু রে

তোর কথা কে বা শোনে? তোকে কে মানে রে?
কেন তোর উঁচু বাড়ি? কেন তুই বাবু রে?
তোর কিসের গরম এত? কষ্ট খুব আহারে!
তোর জুতোর ওজন ভারি, তাই কি তুই বাবু রে!
তোর বুঝি সাদা কলার, সময় নেই কথা বলার,
তোর বুঝি নোংরা লাগে নাকে রুমাল চাপা দে।

১)
যদি মাটির নীচে খনি পাশ
তবে মারবি মানুষ ফেলবি লাশ।
তুই সংরক্ষণে ভয় পাবি
আর ঘুমের ওষুধ টপকাবি।
তোর চাঁদে যাওয়া হলো না, হবে না জানি
তোর ফরসা হওয়া হলো না, হবে না জানি
হবে না, হবে না, হবে না, হবে না।

খালি তোর মাইনে বাড়ে, ওই বোকা শহরে,
তোর গাড়ি ধোঁয়া ছাড়ে, তাই কি তুই বাবু রে!

২)
তোর জীবন সত্যি খুব দামী
তোর যুদ্ধে যাওয়া বোকামি।
তুই যুদ্ধে যাবি কোন মুখে,
তোর সাহস আছে কোন বুকে?
সম্পত্তি কেউ-ই পেল না, পাবে না জানি
তোর ছেলেপুলে হলো না, হবে না জানি
হবে না, হবে না, হবে না, হবে না।

তোর কথা কে বা শোনে? তোকে কে মানে রে?
কেন তোর উঁচু বাড়ি? কেন তুই বাবু রে?
তোর কিসের গরম এত? কষ্ট খুব আহারে!
তোর জুতোর ওজন ভারি, তাই কি তুই বাবু রে!
তোর বুঝি সাদা কলার, সময় নেই কথা বলার,
তোর বুঝি নোংরা লাগে নাকে রুমাল চাপা দে।

বাক্যবাগীশ

১)
জমে ছিল বড় রাস্তার মোড়ে
যত ঠোঙা সব আমাদের কুড়োতেই হবে
নোংরা করেছি জানি পথঘাট এই আমরাই।
চোখ বুঁজে বোবা কারখানা শুয়ে থাকে
যত মারামারি যত খুনোখুনি হোক
নিজের ঘরের ইঁট নড়ে উঠলে তবে কামড়াই।
অতএব শোনো ভাইয়েরা বোনেরা সব
চশমা পরুক ওই দেবতার দল
আর বিষয় বস্তু নিয়ে কেটে পড়লেও বেঁচে থাকব।
ডিগবাজি খেয়ে ফিরে আসি যেই আমি
ভিখিরি সাজায় কোনো পরিণতি নেই
কোন গৌরব নেই শুধু প্রাচীন কবির ভুল কাব্য।

Pre-chorus
পোকা মাকড়ের চেহারায় হয়রান
ভয় পেয়ে গেল বাঙালির সন্তান
হাত তুলে বসে থাকি ডাকি ভগবান
ফ্লাশ টেনে ধুয়ে যাবে কবে অপমান?

Chorus
বাক্যবাগীশ দলে ভিড়ে যাই।

২)
মুখগুলো দেখি যতবার ফাঁকা এই
উপহার তুলে দিলে মানুষের হাতে
দু বোতল দিন রাত ফুরিয়ে গেলেও কার কি আসে?
আমাদের যায় আসে এই ধূসরে
ক্লান্তির কেশরে ভ্রান্তির ফাঁপরে
হাঁপিয়ে উঠেছি এই ঘুরপাক ঝিমঝিম আকাশে।
মনে রেখো এই চিরুনির দাঁতে
খুব পরিপাটি আমাদের ন্যাংটো সভ্য
খুব লজ্জা লজ্জা করে তাকাতে পারি না আমি ওদিকে।
এরপর পড়ে থাকে কিছু সাধারণ
মানুষের কঙ্কাল ধানক্ষেত জুড়ে
আর শয্যার পাশাপাশি শিল্প-বিয়োগ ঘটে সহজেই।

Pre-chorus
পোকা মাকড়ের চেহারায় হয়রান
ভয় পেয়ে গেল বাঙালির সন্তান
হাত তুলে বসে থাকি ডাকি ভগবান
ফ্লাশ টেনে ধুয়ে যাবে কবে অপমান?

Chorus
বাক্যবাগীশ দলে ভিড়ে যাই।

ঘরকুনো ঘাস

১)
মুখ বদল, ভাঙা আড্ডার জমছে হিম
আর এই ঠান্ডা ঘর, এই ভালুক জ্বর
ডাকছে আবার,
খেলবি চল, যথারীতি এই সন্ধ্যা কাক
ডানা মোছে ক্লান্ত দিন, মৃত্যুহীন
পড়ে থাকে অবাক।

Pre-chorus
কেউ চায় না দলছুট শূন্য হোক,
এই বাস্তব সব্বাই আঁকড়ে থাক
রঙ চাইছে আয় তাই মাখব রঙ, যেখানে...

Chorus
ঘরকুনো ঘাসের রঙ, রোদমুঠো রুমালের রঙ
জল সবুজ জানে, আড়াল মানে
গাছের গুঁড়ির বন্ধু মন।।

২)
বন্ধুরা, জড়ো হয়ে থাকে আলাদা
দূর দেশে চিঠি আসে, অবকাশে
আড্ডা মানে,
বদলে যায়, Longitude-এর তফাতে
তাও এ ক্যামেরা রাত, তোর শান্ত হাত
দেখা তোর সাথে।

Pre-chorus
কেউ চায় না দলছুট শূন্য হোক,
এই পিছুটান সব্বাই আঁকড়ে থাক
রঙ চাইছে আয় তাই মাখব রঙ, যেখানে...

Chorus
ঘরকুনো ঘাসের রঙ, রোদমুঠো রুমালের রঙ
জল সবুজ জানে, আড়াল মানে
গাছের গুঁড়ির বন্ধু মন।।

মাটির রঙ

মায়ের শাড়ি রেলিং থেকে ঝোলে,
এক দু ফোঁটা জলে কণা পাই।
আমার পাড়া রিকশাওয়ালা গান শুনিয়ে গেল,
পাঁচিলে ঘেরা বাগান কাছে যাই।
মাটির রঙে মাটির কাছাকাছি,
কুয়োর নীচে অনেক নীচে জল
গ্রীষ্মকালে বাছুরগুলো দারুণ রোদে কাঁদে,
রাস্তা মোছে দিনের কোলাহল।

আ ... আহা ... আ ... আহা ...

১)
আমার গাছে পায় নি যারা ছায়া
আমার গাছে পায় নি যারা ফল
তাদের কাছে আমায় নিয়ে চলো
তাদের বুঝি অন্য কোন দল।
তাদের বুঝি জানলাগুলো বন্ধ করে রাখা
তাদের বুঝি দু চোখ ভরা জল।

বৃষ্টি এলে মাখব কাদা মাঠে,
চুল ভেজাব ইচ্ছে করে রোজ
নোংরা জলে হাত ডোবাব কব্জি থেকে কনুই
পেতেও পারি নতুন কিছু খোঁজ।

২)
কখন তুমি ডাক পিওনে আসো
কখন ছুটি পাথর ফেলা বাঁক
যখন কিছু কচুরি পানা ভেসে
খেজুর গুড়ে শীতের কালে হাঁক।
ওদের বুঝি বায়না করা স্বভাব ধরে গেছে
আজকে তবে ওদের কথা থাক।

দেশলাই বাক্স

১)
দেশলাই বাক্স, এক গ্লাস একশো
রাখঢাক বন্ধ, কাটলাম স্কন্ধ
নিষ্প্রাণ কন্ঠ, ঘেঁটে ঘন্ট
Absurd গল্প, ছ্যাবলামি অল্প।

Pre-chorus
বাগনান, বীরভূম, চুরি যায় শীতঘুম
In fact virus, চকচক smart ass!

Chorus
জানি না, কে বা কারা কখন
আমার মাথায় ঢুকে পড়ে
লণ্ডভণ্ড করে রেখে যায়।
জানি না, কে বা কারা কবে,
আমার দেওয়াল নোংরা করে
ঘুমিয়ে থাকি অন্য বিছানায়!

২)
হারলাম pork-এ, জিতলাম তর্কে
Google করে বাঁচবই, প্রজাপতি হোক টেকসই!

Pre-chorus
গোটা দেশ কাঁদছে, অনসন ভাঙছে,
খোলা হোক champagne, ভুলভাল campaign!

Chorus
জানি না, কে বা কারা কখন
আমার মাথায় ঢুকে পড়ে
লণ্ডভণ্ড করে রেখে যায়।
জানি না, কে বা কারা কবে,
আমার দেওয়াল নোংরা করে
ঘুমিয়ে থাকি অন্য বিছানায়!

রাজপ্রাসাদের বন্দী

১)
রাজপ্রাসাদের বন্দীগুলো আয় না,
আমি গরাদ ভাঙার শব্দ শুনেছি
হাল্কা মেঘে ভাসছে চাঁদের আলো,
এই আলোয় বসেই বছর ঘুনেছি।
ওই অশ্বারোহীর মুখটা দেখা যায় না,
শুধু ঘোড়ার পায়ের শব্দ শুনে যাই
তোরা আবার কেন ভাবতে বসলি ভাই রে,
আমি আজকে রাতেই পালিয়ে যেতে চাই।

chorus
বাড়তে থাকে রক্তচাপের একশ চারের জ্বর
বাড়তে থাকে বন্ধী দেহের একশ কন্ঠস্বর
তাই আর দেরী আর নয়
এই কাঁচের খাঁচা ভাঙতে কিসের ভয়?

২)
এই রাজপ্রাসাদের রাজার ঘরে গিয়ে
জানতে চাইবি রাজার পরিচয়
শুনছি রাজা আমার মতো বলেই
সারা জীবন পাচ্ছে এত ভয়।
ভালবাসা বন্দী রাখা যায় না
শুধু নিয়ম করে চোখ রাঙানোই সার
ধর্ম বিজ্ঞান অনেক হল, অন্য কথা বল
আমার প্রেমে আমার অধিকার!

chorus
বাড়তে থাকে রক্তচাপের একশ চারের জ্বর
বাড়তে থাকে বন্দী দেহের একশ কন্ঠস্বর
তাই আর দেরী আর নয়
এই কাঁচের খাঁচা ভাঙতে কিসের ভয়?

 

Contact Book Anupam Roy Band for Live Shows

Contact Details

Call: +91 9836087757, +91 9051821222

Stay Connected

FacebookTwitterG+